শুক্রবার, ৬ মে, ২০২২

হাতে তুলে নাও রং-তুলি-পেনসিল

 


হাতে তুলে নাও রং-তুলি-পেনসিল 





ব্যবস্থাপনায় : স্কুল কানেক্ট বিভাগ , ম্যাকাউট পশ্চিমবঙ্গ 


মনের কল্পনাকে আরও প্রসারিত করো।

হাতে তুলে নাও রং-তুলি-পেনসিল।

আর কাগজে ফুটিয়ে তোলো সুন্দর ছবি।


অনলাইনে পাঠিয়ে দাও মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল কানেক্ট বিভাগে।



ম্যাকাউটের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র মহাশয়ের পরামর্শে স্কুল কানেক্ট বিভাগ স্কুল পড়ুয়াদের জন্য আয়োজন করেছে  রাজ্য স্তরের অঙ্কন প্রতিযোগিতা।





 


কারা অংশ নিতে পারবে ?

 

প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের কয়েকটি গ্ৰুপে ভাগ করা হয়েছে :

গ্ৰুপ এ  (প্রথম থেকে চতুর্থ )

গ্ৰুপ  বি (পঞ্চম থেকে সপ্তম )

গ্ৰুপ সি (অষ্টম থেকে দশম )

গ্ৰুপ ডি (একাদশ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি )



কীভাবে অংশ নিতে পারবে ?

 

১. প্রত্যেকে যে কোনও বিষয়ে যে কোনও মাধ্যমে(কাগজে বা ক্যানভাসে)একটি ছবি অঙ্কন করো

২. আর মোবাইলে ছবি তুলে পাঠিয়ে দাও নিচে থাকা লিঙ্কে

৩. ছবির ফাইল সাইজ 100 MB -এর মধ্যে হতে হবে

৪. প্রত্যেকে নিজের আঁকা ছবিতে নিজের নাম, ক্লাস এবং ফোন নম্বর লিখবে। না হলে সেই ছবি বাতিল হতে পারে।

 

 https://bit.ly/3sbum6M



অঙ্কন পাঠানোর শেষ তারিখ ২৫ মে, ২০২২

যদি আরও কিছু জিজ্ঞাসা থাকে তাহলে ফোন করো ০৩৩-২৯৯৯ ১৫৩৪ নম্বরে (ছুটির দিন বাদে )

 প্রত্যেক Group  থেকে প্রথম কুড়ি জনের আঁকা ছবি নিয়ে একটি বই প্রকাশ করা হবে।

 

 প্রতিটি গ্ৰুপ থেকে প্রথম তিন জনকে দেওয়া হবে পুরস্কার এবং শংসাপত্র



ধন্যবাদ 




সোমবার, ২ মে, ২০২২

'আমিই উদ্ভাবক', স্কুল পড়ুয়াদের জন্য ম্যাকাউট স্কুল কানেক্ট ডিভিশনের অভিনব উদ্যোগ

 

'আমিই উদ্ভাবক'

 





আমি , এই আমার মধ্যেই রয়েছে যাবতীয় সম্ভাবনা।  শুধুমাত্র সঠিক ভাবে সঠিক পথে সেগুলির প্রকাশ হওয়া প্রয়োজন। তাই ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে থাকা উদ্ভাবনার শক্তিকে বাইরে বের করে আনতে উদ্যোগী হল মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বা ম্যাকাউটের স্কুল কানেক্ট বিভাগ। ম্যাকাউটের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র মহাশয়ের পরামর্শে স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে শুরু হচ্ছে 'আমিই উদ্ভাবক ' শীর্ষক অনুষ্ঠান।

 



ম্যাকাউটের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র মহাশয়





কীভাবে
হবে এই অনুষ্ঠান ?

 .  ছাত্রছাত্রীদের অনলাইনে একটি ফর্ম পূরণ করতে হবে

. সেখানে দিতে হবে তাদের নাম স্কুলের নাম সহ কিছু তথ্য  

. সেখানে উল্লেখ করতে হবে সে নিজে কী উদ্ভাবন করেছে। অর্থাৎ বিজ্ঞানের কোন মডেল তৈরী করেছে

.  সেই সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের পর্যায়ক্রমে স্কুল কানেক্ট বিভাগের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হবে

. তাদের আমন্ত্রণ জানানো হবে ম্যাকাউটের  অনলাইন প্ল্যাটফর্মে

. সেখানে তাদের তৈরী বিজ্ঞানের কোনও মডেল বা উদ্ভাবনী যা কিছু তারা প্রেজেন্টেশন দেবে।  যা দেখবে গোটা বিশ্ব

. তাদের তথ্যগুলি নিয়ে একটি বই প্রকাশ করা হবে। সেখানে তাদের ছবি নাম সহ তাদের তৈরী নানা মডেলের উল্লেখ থাকবে।

. অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকে পাবে পুরস্কার এবং শংসাপত্র

 

নিজের নাম রেজিস্ট্রেশন করার জন্য এই লিংকে ক্লিক করে ফর্ম পূরণ করো


https://bit.ly/3P2Ga59

 

৩১ মে, ২০২২ মধ্যে নাম পাঠাও


বিশদে জানতে ফোন করো : ০৩৩-২৯৯৯ ১৫৩৪

ওয়েবসাইট – www.schoolconnect.makautwb.net

হরিণঘাটা , নদিয়া



শনিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২২

মোবাইল ফোনের অপব্যবহার রুখতে প্রচারে পড়ুয়ারা

 

মোবাইল ফোনের অপব্যবহার রুখতে প্রচারে পড়ুয়ারা

আয়োজক- স্কুল কানেক্ট বিভাগ , ম্যাকাউট, পশ্চিমবঙ্গ




মোবাইলের ওপরে আমরা ক্রমশই নির্ভরশীল হয়ে পড়ছি। এটা সত্য।  

বিভিন্ন ক্ষেত্রে মোবাইল আমাদের সাহায্য করে। বহুদূরে থাকা প্রিয়জনদের আমরা কাছে পেয়েছি এই মোবাইল ফোনের মাধ্যমে। 

কিন্তু এই মোবাইল ফোনের সঠিক ব্যবহার যেমন আমাদের আরও উন্নতির দিকে নিয়ে যেতে সাহায্য করে তেমনই মোবাইলের অপব্যবহার আমাদের জীবনে অন্ধকার নিয়ে আসতে পারে। তাই সর্বদা আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। সচেতন হওয়ার পাশাপাশি আশপাশের সকলকে সচেতন করতে হবে। 

 


সেই উদ্দেশে মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র মহাশয়ের পরামর্শে ম্যাকাউটের স্কুল কানেক্ট বিভাগ মোবাইল-এর  সঠিক ব্যবহারের প্রচার শুরু করছে। আর এক্ষেত্রে সঙ্গী হচ্ছে পড়ুয়ারাই।  তারাই নিজেদের সচেতন যেমন করবে তেমনই অন্তত দশ জনকে এই বিষয়ে সচেতন করার কাজ চালাবে। ম্যাকাউটের তরফ থেকে তাদের এই বিষয়ে শংসাপত্র দেওয়া হবে।  



পড়ুয়াদের কী কী করতে হবে ?



১. নিজে কী কী ভাবে মোবাইলের অপব্যবহার করে নিজে থেকেই তার তালিকে তৈরী করবে।  অর্থাৎ এ ক্ষেত্রে নিজের ভুল নিজেকেই চিনতে হবে।

২. বেশ কয়েক দিন সেগুলি থেকে নিজেকে দূরে সরাতে হবে। 

৩. মোবাইলের অপব্যবহার রুখতে নিজে কী কী পদক্ষেপ করল সেটাও লিখে রাখতে হবে। 

৪. একই ভাবে অন্তত ১০ জনকে মোবাইলের অপব্যবহার সম্পর্কে সচেতন করতে হবে. তাদেরও একই উপায়ে এই অপব্যবহার থেকে মুক্ত হওয়ার পরামর্শ দিতে হবে। 

৫. ম্যাকাউট আয়োজিত অনলাইন অনুষ্ঠানে এসে নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে হবে।  কী ভাবে নিজেকে এবং অপরকে মোবাইলের অপব্যবহার থেকে বাঁচানো যায় সেটাও বলতে হবে।  

ছবিগুলি Wikipedia থেকে নেওয়া হয়েছে...

যোগাযোগ ঃ ০৩৩-২৯৯৯-১৫৩৪

সকাল ১০.৩০ মিনিট থেকে বিকাল ৫.১৫ মিনিট পর্যন্ত (ছুটির দিন ছাড়া)

হরিণঘাটা , নদিয়া




                                                         ধন্যবাদ


সোমবার, ১১ এপ্রিল, ২০২২

আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ২০২২

 

আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ২০২২

 

কলকাতা বইমেলায় ছিল মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টল উদ্বোধন করছেন ম্যাকাউটের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র মহাশয় 


যথারীতি এবছরও কলকাতা বইমেলায় ছিল মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টল। ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ এই স্টলের উদ্বোধন করেন ম্যাকাউটের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র। এছাড়া উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ম্যাকাউটের নিবন্ধক . পার্থপ্রতিম লাহিড়ী , বিত্ত আধিকারিক .অত্রি ভৌমিক সহ অনেকেই।

১৪ দিন ধরেই বই মেলার এই স্টলে স্কুল স্তরের প্রচুর শিক্ষক ছাত্রছাত্রী অভিভাবকেরা আগ্রহের সঙ্গে প্রতিদিন হাজির হন। সংগ্ৰহ করেন ম্যাকাউটে পঠনপাঠন সংক্রান্ত বিবিধ তথ্য।






প্রতিদিন ছিল নানা ধরনের অনুষ্ঠান। শিক্ষক সম্বর্ধনা, ক্যুইজ প্রতিযোগিতা , নানা বই উদ্বোধন বিভিন্ন শিক্ষাবিদদের মূল্যবান বক্তব্য, স্কুল ছাত্রছাত্রীদের আবৃত্তি এবং নানা প্রতিযোগিতার পুরস্কার প্রদান।   

 











ম্যাকাউটের স্টল পরিদর্শন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মাননীয়া শিক্ষামন্ত্রী দীপু মণি মহাশয়া। 




 












বিভিন্ন দিনে আইটি এবং স্ট্যাটসিস্টিক বিভাগ থেকে পড়ুয়াদের লেখা নানা বই উদ্বোধন করা হয়।ওই সমস্ত দিনগুলিতে উপস্থিত ছিলেন ম্যাকাউটের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র মহাশয়আইটি বিভাগের প্রধান সোমদত্তা চক্রবর্তী মহাশয়া এবং স্কুল অব ন্যাচারাল এন্ড স্কুলের

 ডিরেক্টর অধ্যাপক সুখেন্দু সমাজদার মহাশয়। 

 সারা বছর ধরে চলা স্কুল কানেক্ট ডিভিশনের বিভিন্ন অনুষ্ঠানের বিজয়ীদের সম্বর্ধনা দেওয়া হয়।  পাশাপাশি যে সমস্ত শিক্ষক শিক্ষিকারা ম্যাকাউটের সেতু বন্ধন প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তাঁদের কুর্নিশ জানানো হয়।  রাজ্যের বিভিন্ন স্কুল থেকে শিক্ষক শিক্ষিকাদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের মাননীয় সম্পাদক তাপস মুখোপাধ্যায় , যুগ্ম ডিপিআই . পার্থ কর্মকর সহ অনেকে।











'বন্ধু ' যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা মনীষা চক্রবর্তী মাযার লেখা এই সুন্দর এবং উপযোগী বই এর উদ্বোধন হয় এই স্টল থেকেই।  মাননীয় উপাচার্য মহাশয় স্বয়ং এই বইটির উদ্বোধন করেন।  

 












বই পড়ার অভিজ্ঞতা , কোডিং, এনিমেশন সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল এবং সেরার স্থান পায় তাদের পুরষ্কার দেওয়া হয়। বিভিন্ন দিনের সনুঠানে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃত বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপিকা অনুরাধা মুখোপাধ্যায় , এনিউজেএস বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক নিমাইকান্তি চক্রবর্তী, ডাইরেক্টরেট অব টেকনিক্যাল এডুকেশনের জয়েন্ট ডিরেক্টর বিদিশা মুখার্জী মহাশয়া।    

 

শেষ দিনে ১৩ মার্চ ফরেনসিক বিভাগের সঙ্গীত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই বইমেলার অনুষ্ঠান শেষ হয়.  

 

নতুন আঙ্গিকে 'বিজ্ঞানের দিশারী',

নতুন আঙ্গিকে ' বিজ্ঞানের দিশারী '    পরিচালনায়ঃ স্কুল কানেক্ট বিভাগ, মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় , পশ্চিমবঙ্গ ...