রবিবার, ১৯ জুলাই, ২০২০

বাড়ি থেকেই CET এবং JEMAT পরীক্ষার সুবিধা

বাড়ি থেকেই  CET এবং JEMAT পরীক্ষার সুবিধা


ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষিত রাখা মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান লক্ষ্য। তাই ম্যাকাউটের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র মহাশয় জানিয়েছেন বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনও পরীক্ষার্থীকেই বাইরে কোথাও পরীক্ষা দেওয়ার জন্য বেরোতে হবে না। প্রত্যেক পরীক্ষার্থীই তাঁদের বাড়িতে বসেই কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা মোবাইল ফোনের এর মাধ্যমেই পরীক্ষা দিতে পারবেন। ফর্ম পূরণ করতে পারবেন অনলাইনেই

 মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক সৈকত মৈত্র মহাশয়

  

ম্যাকাউটের হরিণঘাটা ক্যাম্পাসে কোন কোর্সের কত কোর্স ফি, বিস্তারিত জানতে পারবেন এই লিঙ্কে ক্লিক করেই।    

https://www.makautwb.ac.in/page.php?id=220

 

অথবা


ভর্তি কোর্স ফি সংক্রান্ত যে কোনও তথ্যের জন্য ফোন করতে পারেন

8017669359 

 

 মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

ফর্ম পূরণ করতে বা বিশদ তথ্যের জন্য ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

https://makautwb.ac.in

 


বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০

এক সূত্রে গাঁথা শিক্ষক-শিক্ষাকর্মীদের সদর্থক ভূমিকা বড় পাওনা: উপাচার্য

এক সূত্রে গাঁথা শিক্ষক-শিক্ষাকর্মীদের প্রতি তৃপ্ত উপাচার্য


এক সূত্রে গাঁথা শিক্ষক শিক্ষাকর্মীরা যেভাবে সঙ্কটের সময়ে কাজ করছেন সেটা আমার কাছে বড় পাওনা। গত মঙ্গলবার ১৪ জুলাই 'সরাসরি উপাচার্য' শীর্ষক অনলাইন এক অনুষ্ঠানে এভাবেই মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষাকর্মীদের প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করলেন মাননীয় উপাচার্য সৈকত মৈত্র মহাশয়।


 উপাচার্য সৈকত মৈত্র মহাশয়

বাংলা ওয়ার্ল্ডওয়াইডের ব্যবস্থাপনায় ওই দিনের আলোচনার শুরুতেই কোভিড -১৯ এর সময়ে ম্যাকাউটের ভূমিকা নিয়ে কিছু কথা বলার জন্য উপাচার্য মহাশয়কে আবেদন করেন সঞ্চালক বরিষ্ঠ সাংবাদিক তথা কলকাতা প্রেসক্লাবের সভাপতি স্নেহাশিস শূর।  তখনই, উপাচার্য জানান, গত মার্চ মাসে যখন লকডাউন সেভাবে শুরু হয়নি তখন থেকেই ম্যাকাউটের পক্ষ থেকে স্যানিটাইজার প্রস্তুত শুরু করা হয়েছিল।  সে সময় বাজারে সেটা অমিল ছিল, এবং মানের দিক থেকেও ভাল স্যানিটাইজার পাওয়া যাচ্ছিল না। সেই সঙ্কটের সময়ে ম্যাকাউট বিনামূল্যে স্যানিটাইজার তৈরী করে। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা (হু) এর নিয়ম মেনে উপাচার্য 'ফর্মুলা' ঠিক করে নিজেও কাজে হাত লাগান, কিন্তু কর্মচারিরা যেভাবে সাহায্য করেছেন তাতে তৃপ্ত উপাচার্য মহাশয়। 

মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

তিনি জানান, অনেকে রকম আছেন যাঁরা এসব কাজ কোনও দিন করেননি। কিন্তু তাঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে এবং তাঁরা সুন্দরভাবে সমস্ত কাজ করেছেন, সমস্ত নিয়ম মেনে স্যানিটাইজার তৈরী করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ নিবন্ধক অনুপ কুমার মুখোপাধ্যায়ের পরিচালনায় স্যানিটাইজার তৈরী এবং আশপাশের গোটা গ্রাম, কলকাতা, গোসাবা বিভিন্ন ক্ষেত্রে সেগুলি বিতরণ করা হয়েছে। কমিউনিটি কিচেন প্রস্তুত করে সেখানে খাবার তৈরী করে গরিব মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। শিক্ষকরা সুন্দর ভাবে নিজেদের কাজ ক্লাস করেছেন। তিনি বলেন, "একসূত্রে গাঁথা ম্যাকাউটের শিক্ষক শিক্ষাকর্মীরা যেভাবে সঙ্কটের সময়ে কাজ করেছেন সেটা আমার কাছে অনেক বড় পাওনা।" তবে একইভাবে খোদ উপাচার্যের থেকে এমন মন্তব্য শিক্ষক শিক্ষাকর্মীদের কাছেও যে বড় পাওনা সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। 

ম্যাকাউটের বিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য ক্লিক করুন 

 






ধন্যবাদ 

বাড়িতে বসেই বিনামূল্যে শিখুন Animated Presentation

  বাড়িতে বসেই বিনামূল্যে শিখুন Animated Presentation     অতিমারীর সময় থেকেই অনলাইন শিক্ষা প্রায় আবশ্যিক হয়ে উঠেছে। তাই অন...