Friday, August 30, 2019



স্কুল কানেক্ট ও ইন্ডাকশন প্রোগ্রাম


জীবনের অট্টালিকা প্রস্তুত হয়। স্কুল নামক ভিদের ওপর দাঁড়িয়ে। দেশের সমস্ত সম্ভাবনা লুকিয়ে থাকে স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের মধ্যেই। সেই ছাত্রছাত্রীদের উন্নত প্রযুক্তির সঙ্গে যুক্ত করতে উদ্যোগী হয়েছে মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। আজকের সামান্য ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে থেকে অসামান্য প্রতিভাকে খুঁজে বের করতে শুরু হয়েছে স্কুল কানেক্ট এবং স্কুল ইন্ডাকশন প্রোগ্রাম। এবার তাদের জন্য এই প্রোগ্রাম নিয়ে কলম ধরলেন মাকাউটের উপদেষ্টা এবং স্কুল কানেক্ট প্রোগ্রামের আহ্বায়ক অধ্যাপক শুভব্রত রায়চৌধুরী।
অধ্যাপক শুভব্রত রায়চৌধুরী 


 বিটেক এবং প্রযুক্তিগত বিএসসি স্নাতক স্তরের কোর্স। স্কুলের গন্ডি পার করে তারপরে এই স্তরে আসতে হয়। তার জন্য আগে থেকেই মানসিক প্রস্তুতির প্রয়োজন। প্রযুক্তি কোর্সের সম্পর্কে ভাল লাগা এবং ভালবাসার সম্পর্ক তৈরী করতে হবে. সে কারনে এ রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলগুলিতে গিয়ে পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলছেন আমাদের প্রতিনিধিরা। মাকাউটের মাননীয় উপাচার্যের পরামর্শে স্কুল কানেক্ট প্রোগ্রামে নতুন নতুন পদক্ষেপ করা হয়েছে। প্রযুক্তির বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নিজেদের মধ্যে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে পড়ুয়ারা।

যাদবপুর বিদ্যাপীঠের ছাত্রছাত্রীরা 


যেমন, ধরা যাক রোবোটিক্স নিয়ে একদল পড়ুয়ার মধ্যে বক্তব্যের প্রতিযোগিতা হল।  কেউ আবার আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে বলতে চায়. সেই সুযোগ পাবে পড়ুয়ারা। প্রতিযোগিতার শেষে প্রথম তিন স্থানাধিকারীকে পুরস্কৃত করা হবে। পাশাপাশি দেওয়া হবে শংসাপত্রও। রাজ্যের যে কোনো স্কুলে পৌঁছে যাচ্ছে ওই প্রতিনিধি দল। একেবারে বিনামূল্যে কেরিয়ার কাউন্সেলিং এর সুযোগ পাচ্ছে পড়ুয়ারা।

ভবিষ্যৎকে আরও দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যেতে গেলে প্রতি মুহূর্তে প্রযুক্তির আরও উন্নতির প্রয়োজন। সেই কাজে যুক্ত হতে হবে এই তরুণ সমাজকে। চিকিৎসা ব্যবস্থা থেকে শুরু করে শিক্ষা, ব্যবসা থেকে শুরু করে চাকরি সর্বত্রই প্রযুক্তির প্রয়োজন। দুনিয়া যত বেশি করে পরিবর্তিত হচ্ছে ততই চাহিদা বাড়ছে প্রত্যেকের। সেই তাগিদে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রযুক্তির ব্যবহার। প্রযুক্তি ছাড়া কার্যত আমরা অচল। তাই ছাত্রছাত্রীদের সেই ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত করতে এই উদ্যোগ। 





No comments:

Post a Comment